1. kmohiuddin456@gmail.com : admin :
  2. dailybanglarrobi@gmail.com : Arif Mahamud : Arif Mahamud
  3. jahedulhaque24@gmail.com : Jahidul Hoque Masud : Jahidul Hoque Masud
শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:৩৬ অপরাহ্ন
নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে, যোগাযোগ : ০১৭০৮ ৫১৫৫৩৫, প্রচারেই প্রসার # সকল প্রকার বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন - ০১৭১২ ৬১৮৭০০

ভালুকা মডেল থানার পুলিশ ৩ আসামী গ্রেপ্তার,ও আদালতে স্বীকারউক্তি।

রিপোর্টার :
  • হালনাগাদ : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন, ২০২০
  • ৩১ Time View

ভালুকাপ্রতিনিধিঃ
আনুমানিক বিকাল ২,৪৫ ঘটিকায় ভালুকা থানাধীন খারুয়ালী সাকিনের খিরু নদীতে কালেংগার ঘাট নামক স্হানে একটি লাশ পানিতে ভাসিতেছে, এই মর্মে খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।
অজ্ঞাতনামা আসামীরা উক্ত মহিলাকে হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য নদীতে ফেলে দেয়,,বলে প্রমানিত হইলে উক্ত ঘটনায় এস আই ( নিঃ) মোঃ আবু তালেব বাদী হয়ে এজাহার দায়ের করেন, ভালুকা মডেল থানা, মামলা নং – ১৯, তাং ১৪-০৬-২০২০ ইং, ধারা – ৩০২/২০১/৩৪ দঃ বিঃ রুজু করা হয়।
পুলিশ সুপার ময়মনসিংহ, জনাব, মোহাম্মদ আহমার উজ্জামান পি পি এম – সেবা এর দিক নির্দেশনায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, গফরগাঁও সার্কেল, জনাব, আলী হায়দার চৌধুরীর তত্বাবধানে, ভালুকা মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক ( তদন্ত) খোরশেদ আলম, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই নিরাঞ্জন কুমার ভৌমিক ও এস আই মোঃ ইকবাল হোসেন, (পি পি এম) সহ ফোর্স নিয়ে ভিবিন্ন স্হানে অভিযান পরিচালনা করিয়া অঞ্জাতনামা লাশের পরিচয় সনাক্ত করে লাশের পরিচয়, কানিজ ফাতেমা,(১৭) পিতা, ওমর ফারুক, সাং,মামারিশপুর, ৭ মল্লিকবাড়ী ইউনিয়ন, থানা, ভালুকা, জেলা, ময়মনসিংহ।
মৃত দেহের পরিচয় সনাক্ত করিয়া, বিজ্ঞান ভিত্তিক আধুনিক তদন্ত পরিচালনা করে, মামলা রুজু হওয়ার ৩ দিনের মধ্যে উক্ত ঘটনায় জড়িত( ১) মনির হোসেন (২৩) পিতা, জহির হোসেন।( ২) মোঃ জামাল হোসেন (২৫) পিতা,আয়ুব আলী সেক, উভয়ের সাং কাঁঠালি, ৮ নং ওয়ার্ড ভালুকা পৌরসভা।
তাদের কে ১৮-০৬-২০২০ ইং রাত ৩, ৩০ ঘটিকায় কাঠাঁলী এলাকা হতে গ্রেপ্তার করা হয়। আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার তথ্য বেরিয়ে আসে।
গত ০৩-০৬-২০২০ ইং রাত ৮ ঘটিকার সময় কানিজ ফাতেমা, ভালুকা বাজার থেকে বাড়ী যাওয়ার সময় আসামীদ্বয় বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে ভালুকা পৌরসভাস্হ ২ নং ওয়ার্ডের খিরু নদী সংলগ্ন জৈনক আজিজুল হকের বিভিন্ন প্রজাতির গাছের বাগানের ভিতরে ফাঁকা জায়গায়, কানিজ ফাতেমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষন করে, বেল্ট গলায় পেচিয়ে শ্বাস রোধে হত্যা করে নদীতে লাশ ফেলে চলিয়া যায়।
আসামীদের কাছ থেকে মৃত, কানিজ ফাতেমার মোবাইল সিম কার্ড উদ্ধার করা হয়, অদ্য আসামীদ্বয় হত্যার দায় স্বীকার করে বিজ্ঞ আদালতে ফৌঃ কাঃ আইনের ১৬৪ধারায় ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট জবানবন্দি প্রদান করেছে। হত্যার সাথে জড়িত অন্যান্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত, (প্রস রিলিজ)

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

এই শাখায় অন্যান্য খবর
%d bloggers like this: