1. kmohiuddin456@gmail.com : admin :
  2. dailybanglarrobi@gmail.com : Arif Mahamud : Arif Mahamud
  3. jahedulhaque24@gmail.com : Jahidul Hoque Masud : Jahidul Hoque Masud
মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে, যোগাযোগ : ০১৭০৮ ৫১৫৫৩৫, প্রচারেই প্রসার # সকল প্রকার বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন - ০১৭১২ ৬১৮৭০০

বিশ্বনাথ প্রোগ্রাম অফিসারের হামলায় আহত গণশিক্ষার তিন শিক্ষক!

রিপোর্টার :
  • হালনাগাদ : সোমবার, ২৯ জুন, ২০২০
  • ৪৭ Time View

সিলেটপ্রতিনিধি :

বেতনের টাকা কম দেয়ার প্রতিবাদ করায় হামলার শিকার হয়েছেন বয়স্কদের নিয়ে পরিচালিত গণশিক্ষার তিন শিক্ষক। এ ঘটনায় গণশিক্ষার প্রোগ্রাম অফিসার ও তার তিন সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার বিকেলে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা-ব্যুরো অফিসে এ ঘটনা ঘটে।

বেতনের টাকা কম দেয়ায় প্রতিবাদ করায় তাদের উপর হামলা করার নির্দেশ দেন প্রকল্পের উপজেলা প্রোগ্রাম অফিসার পরাগ আচার্য্য।
স্থানীয় সূত্র ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিশ্বনাথে মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্পের আওতায় বয়স্কদের নিয়ে পরিচালিত গণশিক্ষার কার্যক্রমে নিয়োগ পেয়ে মাসিক ২ হাজার ৪শ’টাকা বেতনে উপজেলায় প্রায় ৪ শতাধিক শিক্ষকরা বয়স্কদের শিক্ষা দিয়ে যাচ্ছেন। রবিবার এক সঙ্গে তিন মাসের বেতন ৭ হাজার ২০০ টাকা নিতে উপজেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা-ব্যুরো অফিসে জড়ো হন রামপাশা ইউনিয়নের ৫২ জন শিক্ষক। বেতন সীটে স্বাক্ষর নিয়ে ৭ হাজার ২০০ টাকার পরিবর্তে পুরুষ শিক্ষকদের ৫ হাজার আর নারী শিক্ষকদের ৪ হাজার টাকা করে দেন উপজেলা প্রোগ্রাম অফিসার পরাগ আচার্য্য। টাকা কম দেয়ায় তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ করেন শিক্ষকরা।

এসময় কর্মকর্তা পরাগ আচার্য্য’র নির্দেশে ইউনিয়ন সুপারভাইজার দবির মিয়া, খলিলুর রহমান, সাইদুর রহমান, জাহানুর রহমান, সুমন মিয়া, জাহাঙ্গীর আলম, আজিজুর রহমান, ফারুক মিয়াসহ বহিরাগতরা শিক্ষকদের ওপর হামলা করেন। হামলায় আহত হন প্রকল্পের শিক্ষক ও উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের ধলিপাড়া গ্রামের মৃত হাজী নজির উদ্দিনের ছেলে সামসুদ্দিন, একই গ্রামের আকবর আলীর ছেলে রাসেল আহমদ, রহমান নগর গ্রামের মৃত মানিক উদ্দিনের ছেলে মিজানুর রহমান টিটু।

পরে খবর পেয়ে এ ঘটনায় প্রোগ্রাম অফিসার পরাগ আচার্য্য ও তার তিন সহযোগীকে (প্রকল্পের সুপারভাইজার) আটক করে বিশ্বনাথ থানা পুলিশ। আটক তিন জন হলেন, ইউনিয়ন সুপারভাইজার সুমন মিয়া (দশঘর), আজিজুর রহমান (খাজাঞ্চি) ও ফারুক মিয়া (লামাকাজি)।

এ বিষয়ে কথা হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. কামরুজ্জামান বলেন, বেতন কম দেওয়ার সুযোগ নেই। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নিতে থানা অফিসার ইনচার্জকে বলে দেয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

এই শাখায় অন্যান্য খবর
%d bloggers like this: