1. kmohiuddin456@gmail.com : admin :
  2. dailybanglarrobi@gmail.com : Arif Mahamud : Arif Mahamud
  3. jahedulhaque24@gmail.com : Jahidul Hoque Masud : Jahidul Hoque Masud
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০:১৫ অপরাহ্ন
নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে, যোগাযোগ : ০১৭০৮ ৫১৫৫৩৫, প্রচারেই প্রসার # সকল প্রকার বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন - ০১৭১২ ৬১৮৭০০

দেশ-বিদেশে ইমেজ নষ্ট হচ্ছে কিছু ব্যক্তির অপকর্মে

রিপোর্টার :
  • হালনাগাদ : শনিবার, ১১ জুলাই, ২০২০
  • ৪৮ Time View

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক:

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, কিছু অসাধু ব্যক্তির অসৎ কাজের কারণে দেশ-বিদেশে আমাদের ইমেজ নষ্ট হচ্ছে। এগুলোর পুনরাবৃত্তি রোধ করা দরকার। সরকার সেদিকেই যাচ্ছে। তবে এ চেষ্টা শুধু সরকারেই সীমাবদ্ধ থাকলে সুফল আসবে না। সবাইকেই এ ধরনের মানসিকতা পরিত্যাগে মনোযোগী হতে হবে।

শনিবার (১১ জুলাই) ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) আয়োজিত এক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য এ কথা বলেন মন্ত্রী।

‘বেসরকারিখাতের দৃষ্টিতে বাংলাদেশের অর্থনীতির বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ প্রেক্ষিত’ শীর্ষক ওয়েবিনারে সভাপতিত্ব করেন চেম্বার সভাপতি শামস মাহমুদ। অনুষ্ঠানে প্রতিপাদ্যের ওপর ঢাকা চেম্বার একটি আউটলুক প্রকাশ করে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আর্থিকখাতের স্বচ্ছতা জোরদারে সরকার এখন গুড গর্ভনেন্স প্রতিষ্ঠায় জোরালো পদক্ষেপে যাচ্ছে। সরকারি-বেসরকারি সব খাতে এই কমপ্লায়েন্স নিশ্চিত করা হবে। পাশাপাশি বাণিজ্য সংশ্লিষ্ট আইনগুলোর আরও সংস্কার করা হবে। বিশেষ করে ব্যাংকিংখাতে আরও ডিজিটাইলাইজেশন এখন সময়ের দাবি।

তবে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় তিনি দেশের সরকার ও বেসরকারিখাতকে সাহসিকতার সঙ্গে এগিয়ে আসারও আহ্বান জানান।

ডিসিসিআই সভাপতি শামস মাহমুদ দেশের অর্থনীতির ২০টি খাতের বর্তমান অবস্থা ও খাতগুলোর উন্নয়নে সুপারিশ উপস্থাপন করেন। মূল প্রবন্ধে তিনি বলেন, চলমান কোভিড মহামারি পরিস্থিতিতে জীবন-জীবিকার চাকা সচল রাখতে অনেক কঠোর পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করতে হচ্ছে।

তিনি কোভিড পরবর্তী অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়ায় সরকারের যথাযথ নীতি সহায়তা ও প্রণোদনার সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করার তাগিদ দেন।

রপ্তানিমুখী শিল্পের জন্য উৎসে কর কমিয়ে ০.২৫ শতাংশ নির্ধারণ, চীন থেকে বাংলাদেশে বিনিয়োগ স্থানান্তরের ক্ষেত্রে সহায়ক পরিবেশ তৈরিতে সুনির্দিষ্ট রোডম্যাপ ও কৌশল গ্রহণ, যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে জিএসপি ফিরে পাওয়া, অশুল্ক বাধা দূর ও সম্ভাবনাময় অংশীদারদের সঙ্গে মুক্তবাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর এবং চামড়াখাতের উন্নয়নে দ্রুত সিইটিপি স্থাপন ও ট্যানারি মালিকদের স্বল্পসুদে ঋণ দেওয়ার প্রস্তাবও রাখেন তিনি।

ডিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি হোসেন খালেদ বলেন, ব্যাংকখাত থেকে সরকারের বেশিমাত্রায় ঋণ নেওয়ার প্রবণতা বেসরকারিখাতে ঋণ প্রবাহ কমিয়ে দিতে পারে।

সরকার ঘোষিত প্রণোদনার প্যাকেজ থেকে বিশেষ করে এসএমইখাতের উদ্যোক্তারা যেন ঋণ সহায়তা পেতে পারেন, সে ব্যাপারে সরকারের আরও মনোযোগী হওয়ার তাগিদ দেন সংগঠনটির আরেক সাবেক সভাপতি আবুল কাসেম খান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

এই শাখায় অন্যান্য খবর
%d bloggers like this: