1. kmohiuddin456@gmail.com : admin :
  2. dailybanglarrobi@gmail.com : Arif Mahamud : Arif Mahamud
  3. jahedulhaque24@gmail.com : Jahidul Hoque Masud : Jahidul Hoque Masud
মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে, যোগাযোগ : ০১৭০৮ ৫১৫৫৩৫, প্রচারেই প্রসার # সকল প্রকার বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন - ০১৭১২ ৬১৮৭০০

ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা ও কাশি সারাবে গোলাপ

রিপোর্টার :
  • হালনাগাদ : সোমবার, ২০ জুলাই, ২০২০
  • ৪১ Time View

লাইফষ্টাইল ডেস্ক:

ফুলের কথা মনে হলেই শুরুতেই মাথায় আসে গোলাপের কথা। প্রিয়জনকে উপহার দিতে কিংবা কাউকে শুভেচ্ছা জানাতে গোলাপের কদর সবখানেই। এর সৌন্দর্য আর ঘ্রাণ মোহিত করে সবাইকে। ভালোবাসা ও শান্তির প্রতিক বহনকারী গোলাপের রয়েছে নানা ব্যবহার। সেগুলো জানতেন কি?
মাত্র কয়েকদিনেই গোলাপ শুকিয়ে বা পচে নষ্ট কয়ে যায়। থাকে না তার সৌন্দর্য কিংবা ঘ্রাণ। তাই এর পাপড়িগুলো শুকিয়ে সংরক্ষণ করতে পারেন। কাজে আসবে নানা উপায়ে। এজন্য গোলাপের পাপড়ি ছাড়িয়ে ভালোভাবে ধুয়ে নিন। এবার পানি ঝরিয়ে রোদে শুকিয়ে গুঁড়া করে সংরক্ষণ করুন। জেনে নিন কীভাবে ব্যবহার করবেন গোলাপের পাপড়ির গুঁড়া –

ত্বকের যত্নে

ত্বকের যত্নে বা সৌন্দর্য বাড়াতে গোপালের কদর হাজার হাজার বছর আগে থেকেই। আগেকার রানিরা কিন্তু গোসলের পানিতে ব্যবহার করতেন গোলাপের তেল, নির্যাস বা পাপড়ি। আপনিও রূপচর্চায় নিয়মিত এটি ব্যবহার করতে পারেন।

ফেস প্যাক হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। শুকনো গোলাপের পাপড়ির সঙ্গে মুলতানি মাটি মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করুন। শুকনো গোলাপের পাপড়ি থেকে তৈরি করা গোলাপজলও ব্যবহার করতে পারেন। এটি ত্বকের যত্নে ও ত্বক পরিষ্কার করতে দারুণ কার্যকর।

ক্ষত সারাতে

কোথাও জখম হলে বা কেটে গেলে ক্ষত সারতে দেরি হয় অনেক। এজন্য দারুন কাজ করবে গোলাপের শুকনো পাপড়ি। শুকনো ও গুঁড়া করা গোলাপের পাপড়ি পানিতে মিশিয়ে ক্ষতস্থানে ব্যবহার করলে ক্ষতস্থান দ্রুত ভালো হয়।

অ্যাসিডিটি থেকে মুক্তি দেয়

অ্যাসিডিটি বা এর থেকে হওয়া বদহজমের সমস্যায় অনেকেই প্রায়ই ভুগে থাকেন। শুকনো গোলাপের পাপড়ি গুঁড়া দুধের সঙ্গে স্বল্প পরিমাণ মিশিয়ে পান করলে অ্যাসিডিটি ও স্টমাক আলসারের সমস্যা কমে যায়।

শুধু অ্যাসিডিটির সমস্যাই নয়, ডায়রিয়ায় প্রকোপ কমাতেই উপকারী শুকনো গোলাপের পাপড়ি। এছাড়াও কোষ্ঠ্যকাঠিন্যের সমস্যা দূর করতে উপকারী ভূমিকা রাখে শুকনো গোলাপের পাপড়ির গুঁড়া।

দাঁতের ক্ষয়রোধ করে

হারবাল চা তৈরিতে শুকনো গোলাপের পাপড়ির ব্যবহার নতুন কিছু নয়। বিভিন্ন মশলার সঙ্গে শুকনো এক-দুইটি পাপড়ি বা পাপড়ি গুঁড়া ব্যবহারে অ্যাসিডিটির সমস্যাসহ দাঁতের ক্যাভিটি বা ক্ষয়রোধ রোধ করা সম্ভব।

সাধারণ ফ্লু থেকে রক্ষা করে

এই সময় অনেকেই সাধারণ ফ্লুতে আক্রান্ত হচ্ছেন। গলা ব্যথা অথবা অতিরিক্ত কাশি ও কাশির ফলে গলার ভেতরে ছিলে যাওয়ার মত জ্বলুনিভাব হয়। এটি কমাতে শুকনো গোলাপের পাপড়ি পানিতে জ্বাল দিয়ে ছেঁকে সেই পানিতে গার্গল করুন। তাছাড়া গোলাপের কুড়ি থেকে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন-সি পাওয়া যায়। তাই গোলাপের কুড়ির শুকনো পাপড়ির চা ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা ও কাশির প্রাদুর্ভাব কমাতে কার্যকর।

তেল তৈরি করতে পারেন

শুকনো গোলাপের পাপড়ি এবং নারিকেল তেল জ্বাল দিতে হবে মাঝারি আঁচে। তেলের রঙ পরিবর্তন হয়ে আসলে পানিয়ে ছেঁকে নিতে হবে ভালোভাবে এবং সংরক্ষণ করতে হবে। পুরো বিশ্ব জুড়েই রোজ অয়েল অন্যতম সর্বাধিক ব্যবহৃত একটি পণ্য। এটি আপনি ত্বকে ব্যবহার করতে পারবেন। আবার অনেক খাবারে গোলাপের কয়েক ফোঁটা তেল রাজকীয় ভাব এনে দেয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

এই শাখায় অন্যান্য খবর
%d bloggers like this: