1. kmohiuddin456@gmail.com : admin :
  2. dailybanglarrobi@gmail.com : Arif Mahamud : Arif Mahamud
  3. jahedulhaque24@gmail.com : Jahidul Hoque Masud : Jahidul Hoque Masud
রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৪৫ অপরাহ্ন
নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে, যোগাযোগ : ০১৭০৮ ৫১৫৫৩৫, প্রচারেই প্রসার # সকল প্রকার বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন - ০১৭১২ ৬১৮৭০০

প্যারাবেন যুক্ত শ্যাম্পু চুল ও স্বাস্থ্যের জন্য হতে পারে ক্ষতিকর

রিপোর্টার :
  • হালনাগাদ : বুধবার, ১২ আগস্ট, ২০২০
  • ৫৭ Time View

যুগ যুগান্তর ডেস্ক:

চুলের সৌন্দর্যচর্চার জন্য সঠিক পণ্য বাছাইয়ের ক্ষেত্রে যারা অত্যন্ত সচেতন, তাদের অধিকাংশই পণ্যের গায়ে থাকা পণ্যটি তৈরিতে ব্যবহৃত উপাদানের বিবরণী পড়ে থাকেন। তারা অত্যন্ত সতর্কতার সাথে লক্ষ্য করেন, পণ্যটিতে কোন ক্ষতিকর কেমিক্যাল ব্যবহার হয়েছে কী না। চুলের সৌন্দর্যচর্চা এবং সুস্থ সুন্দর চুলের অধিকারী হওয়ার জন্য পারফেক্ট শ্যাম্পু নির্বাচনের ক্ষেত্রে যেমন দেখা হয়, প্যারাবেন ব্যবহার করা হলো কী না। আবার অনেকেই হয়তো বিষয়টি খুব একটা গুরুত্বের সাথে খেয়ালই করেন না, যা কী না অদূর ভবিষ্যতে আপনার জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দেখা দিতে পারে। এমন ক্ষতির হাত থেকে বাঁচতে পণ্যের লেবেল দেখে পণ্য কেনার পরামর্শ দিয়ে থাকেন বিশেষজ্ঞরা।

চুলের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখা এবং সৌন্দর্যচর্চার কাজে শ্যাম্পু এখন আমাদের নিত্যসঙ্গী। এর সাথে বন্ধন ছিন্ন করার উপায় নেই। কিন্তু, এই বন্ধু বাছাইয়ের ক্ষেত্রে আমাদের বেশকিছু সতর্কতা অবলম্বন করা একেবারে অত্যাবশ্যক। বর্তমান বাজারে রয়েছে নানান রকম শ্যাম্পুর সমাহার। তার মধ্যে কিছু শ্যাম্পু তৈরিতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে প্যারাবেন-এর মতো কেমিক্যাল, যা আমাদের চুলের সাথে সাথে স্বাস্থ্যের ক্ষতির কারণও হয়ে উঠতে পারে।

প্রসাধনী সামগ্রীর শেলফ-লাইফ যাতে দীর্ঘ হয় সেজন্য প্রিজারভেটিভ হিসেবে প্যারাবেন ব্যবহার করা হয়ে থাকে। বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে কিছু কিছু প্যারাবেনের চরিত্র অনেকটা ইস্ট্রোজেন হরমোনের মতো। শরীরের স্বাভাবিক ইস্ট্রোজেন হরমোন উৎপাদনের সঙ্গে এই প্যারাবেন প্রতিক্রিয়া ঘটাতে পারে, যার প্রভাবে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে নানান ধরণের জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। প্যারাবেনের অতিরিক্ত উপস্থিতি আছে এমন প্রসাধনী ব্যবহারে স্বাস্থ্যগত সমস্যা দেখা দিতে পারে, অবহেলার কারণে যা পরবর্তীতে রূপ নিতে পারে ক্যান্সারে, হতে পারে স্তন ক্যান্সারও। তাই চুলে প্যারাবেনের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে মুক্ত থাকতে প্যারাবেন যুক্ত শ্যাম্পুর ব্যবহার পরিহার করাই উত্তম। যে কারণে বিশেষজ্ঞরা চুলের যত্নে এমন শ্যাম্পু ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন, যা প্যারাবেন মুক্ত আবার একইসাথে প্রাকৃতিক উপাদানের গুণ সমৃদ্ধ। কেননা প্রাকৃতিক উপাদানে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা চুলকে ভেতর থেকে করে মজবুত ও সুন্দর।

প্যারাবেন যুক্ত শ্যাম্পু একই সাথে আপনার চুল ও স্বাস্থ্য উভয়ের জন্যই হয়ে উঠতে পারে ক্ষতিকর। সুতরাং আপনার চুলের সুস্বাস্থ্য ধরে রাখতে হলে প্যারাবেন মুক্ত শ্যাম্পু নির্বাচনের কোন বিকল্প নেই। কারণ, প্রতিষেধকের চেয়ে প্রতিরোধই উত্তম।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

এই শাখায় অন্যান্য খবর
%d bloggers like this: