1. kmohiuddin456@gmail.com : admin :
  2. printrajbd@gmail.com : admin1 :
  3. dailybanglarrobi@gmail.com : Arif Mahamud : Arif Mahamud
  4. jahedulhaque24@gmail.com : Jahidul Hoque Masud : Jahidul Hoque Masud
শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে, যোগাযোগ : ০১৭০৮ ৫১৫৫৩৫, প্রচারেই প্রসার # সকল প্রকার বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন - ০১৭১২ ৬১৮৭০০

চালকবিহীন গাড়ি স্মার্ট হাসপাতালে

রিপোর্টার :
  • হালনাগাদ : বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই, ২০২০
  • ৬১ Time View

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক :

থাইল্যান্ডের স্মার্ট হাসপাতাল হিসেবে খ্যাত সিরিরাজ হাসপাতাল প্রথমবারের মতো ৫জি প্রযুক্তি নিয়ন্ত্রিত চালকবিহীন গাড়ির পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুরু করেছে। হুয়াওয়ের ৫জি প্রযুক্তির মাধ্যমে এ চালকবিহীন গাড়িগুলো মানুষের কোনো সংস্পর্শ ছাড়াই চিকিৎসাসেবা সংক্রান্ত উপকরণ সরবরাহ করবে।

এ বিশ্বসেরা প্রযুক্তি ও উদ্ভাবনের ব্যবহার চিকিৎসা পদ্ধতিকে ৫জি যুগে উন্নীত করবে এবং চিকিৎসা সেবা ও স্বাস্থ্য খাতেও নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এ ধরনের প্রযুক্তি জটিল পরিবেশে কার্যক্রম চালাতে সক্ষম বলে লিজিস্টিক সেবায় মানুষের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। চালকবিহীন এ গাড়ি নিরাপদ, সহজে ব্যবহারযোগ্য, সাশ্রয়ী সমাধান এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের চাপ কমিয়ে রোগীদের সুরক্ষা নিশ্চিতেও বেশ কার্যকর।

দেশটির জাতীয় সম্প্রচার ও টেলিযোগাযোগ কমিশন (এনবিটিসি) গৃহীত ৫জি প্রযুক্তির মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা প্রকল্পের মধ্যে এটি অন্যতম একটি প্রকল্প। সিরিরাজ হাসপাতালে প্রথম পরীক্ষামূলক কার্যক্রম চালানোর পরে এনবিটিসি ৫জি সক্ষম বিভিন্ন চালকবিহীন গাড়ির সুবিধা এবং সক্ষমতা মূল্যায়ন করবে। এখান থেকে প্রাপ্ত ফলাফল পরবর্তীতে অন্যান্য হাসপাতালসহ নানাবিধ ব্যবহারের জন্য সহায়ক হবে।

মাহিদল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিরিরাজ হাসপাতালের মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. প্রসিত ওয়াতানাপা বলেন, ‘৫জি প্রযুক্তির চালকবিহীন গাড়ির পরীক্ষামূলক প্রকল্প হাসপাতালের মধ্যে কেন্দ্রীয় লজিস্টিক সিস্টেমকে আরো উন্নত করবে। প্রাথমিক পর্যায়ে এ প্রযুক্তি মানুষের সংস্পর্শ ছাড়া ওষুধ পরিবহন এবং বিতরণ করতে ব্যবহার করা হবে, যা স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের চাপ ও সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করবে। দীর্ঘমেয়াদী এবং টেকসই উন্নয়নের জন্য স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে এটি গুরুত্বপূর্ণ এক পদক্ষেপ।’

হুয়াওয়ে থাইল্যান্ডের প্রধান নির্বাহী আবেল ডেং বলেন, ‘এ পরীক্ষামূলক প্রকল্পটি দ্রুত ডিজিটালাইজেশনের একটি অন্যতম নজির, কেননা ৫জি প্রযুক্তিই পরবর্তী প্রজন্মের স্বাস্থ্যসেবা খাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

এই শাখায় অন্যান্য খবর
%d bloggers like this: