1. kmohiuddin456@gmail.com : admin :
  2. printrajbd@gmail.com : admin1 :
  3. dailybanglarrobi@gmail.com : Arif Mahamud : Arif Mahamud
  4. jahedulhaque24@gmail.com : Jahidul Hoque Masud : Jahidul Hoque Masud
সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৭:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
‘শান্তি ফেরাতে ৩ পার্বত্য জেলায় আধুনিক পুলিশ মোতায়েন করা হবে’ বেপরোয়া গাড়ি চালানো বন্ধ করতে বললেন ওবায়দুল কাদের বেসরকারি হাসপাতালের সেবামূল্য সরকার নির্ধারণ করবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিদেশে পাচারকৃত অর্থ ফেরাতে হাইকোর্টের রুল নেশার টাকা না পেয়ে মাকে মেরেই ফেললেন পাপিয়া আয়ারল্যান্ডকে ইনিংস ব্যবধানে হারালো বাংলাদেশ প্রযুক্তির সঙ্গে খাপ খাওয়াতে তরুণদের দক্ষ-পারদর্শী করে তুলতে হবে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী অধিকারের প্রশ্নে শামসুল হক ছিলেন আজীবন আপসহীন: গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী ৪৮ হাজার শিক্ষককে যেতে হবে প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনালে মায়ের চিকিৎসার অর্থ যোগাতে ক্রিকেটে ফিরতে শাহাদাতের আকুতি
নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে, যোগাযোগ : ০১৭০৮ ৫১৫৫৩৫, প্রচারেই প্রসার # সকল প্রকার বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন - ০১৭১২ ৬১৮৭০০

মসজিদে বাকবিতণ্ডা, বিচার চাইতে গিয়ে সালিসেই খুন!

রিপোর্টার :
  • হালনাগাদ : শনিবার, ৪ জুলাই, ২০২০
  • ৪৯ Time View


লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:

কুমিল্লার লাকসামে একটি সালিস বৈঠকে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে ছানা উল্লাহ (৫০) নামে সালিসের বাদি নিহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে উপজেলার আজগরা ইউনিয়নের চরবাড়িয়া (হালিয়া) গ্রামে। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে আজ শনিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ (কুমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় নিহত ছানা উল্লাহর ছেলে শরিফ আহমেদ ফয়সাল ঘটনার সঙ্গে জড়িত ৯ জনকে আসামি করে লাকসাম থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

এলাকাবাসী ও লাকসাম থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের অটোরিকশাচালক ছানা উল্লাহ শুক্রবার জুমার নামাজ পড়তে গ্রামের একটি মসজিদে যান। ওই সময় একই গ্রামের জামশেদের ছেলে মসজিদের ভিতরে হাসিঠাট্টা ও দুষ্টমি করলে ছানা উল্লাহ তাকে বারণ করে। নামাজ শেষে বিষয়টি নিয়ে জামশেদ ছানা উল্লার ওপর চড়াও হয়। এই নিয়ে দুইজনের মধ্যে চরম বাকবিতাণ্ডা এবং উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি মীমাংসার কথা বলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন।

ওইদিন রাতেই গ্রামের সিরাজ মিয়ার চা দোকানে সালিস বৈঠক বসে। সালিস বৈঠক চলাকালে দুইজনের মধ্যে কথাকাটির একপর্যায়ে হঠাৎ জামশেদ ও তার পক্ষের লোকজন উত্তেজিত হয়ে ছানা উল্লাহকে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে তাকে ছুরিকাঘাত করে তারা পালিয়ে যায়। উপস্থিত লোকজন মুমূর্ষু অবস্থায় ছানা উল্লাহকে উদ্ধার করে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত ছানা উল্লাহর ছেলে শরিফের দাবি, পূর্ব পরিকল্পিতভাবে প্রতিপক্ষ জামশেদসহ তার সহযোগিরা অন্যায়ভাবে তাঁর বাবাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে। তিনি বলেন, আমি এই ঘটনার উপযুক্ত বিচার চাই। দ্রুত আসামিদের গ্রেপ্তার করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে তিনি পুলিশ প্রশাসনের প্রতি দাবি জানান।

এদিকে অভিযুক্ত জামশেদের বক্তব্য নেওয়ার জন্য একাধিকবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এই ব্যাপারে আজগরা ইউপি চেয়ারম্যান মো. রুহুল আমিন মুঠোফোনে বলেন, ওই গ্রামের মসজিদের টাকার হিসাব নিয়ে বাকবিতণ্ডার জের ধরেই ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। তবে এটি অনাকাঙ্খিত ও দুঃখজনক।

লাকসাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মুঠোফোনে জানান, আজ শনিবার সকালে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ (কুমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় নিহতের ছেলে বাদি হয়ে লাকসাম থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। তদন্ত সাপেক্ষ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

প্রিন্ট করুন

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

এই শাখায় অন্যান্য খবর
%d bloggers like this: